Author

Sudip Ghoshal ।। সুদীপ ঘোষাল


কাঁটা
সুদীপ ঘোষাল

ঘুঙুর পরা হাঁসটা কেমন হেলেদুলে চলেছে। চুমকির পিছনে পিছনে চলেছে হাঁসটা। চুমকিকে এখন সরস্বতী ঠাকুরের মতো লাগছে। বাহন তার চলেছে সঙ্গে সঙ্গে। ঘাটে শান বাঁধানো সিঁড়িতে চুমকি বসে পরলো। আর হাঁসটা উড়ে গিয়ে পরলো জলে। ডুব দিয়ে চুমকিকে খেলা দেখিয়ে চলেছে। চুমকি জলে ঝুঁকে পরা গাছটার ডাল ধরে তুলে আনলো পানিফল। ছাড়িয়ে খেতে গিয়ে পানিফলের কাঁটা ফুটে গেলো। লাল এক ফোঁটা রক্ত চুঁইয়ে পরলো মাটিতে। পাশে চাঁদু এসে বললো, দে দে আঙুলটা দে। চুমকির আঙুলটা মুখে নিয়ে চুষতে লাগলো। চুমকির খুব সুড়সুড়ি পেলো। সে হাসতে লাগলো। চাঁদু বললো, জানিস না, মুখের লালায় ঘা পর্যন্ত ভালো হয়ে যায়। চাঁদু আঙুল ছাড়ছে না, খুব ভালো লাগছে। চুমকিও জোর করছে না। একটা ভালো লাগা শিরশিরে ভাবে সে বিহ্বল। চুমকি আঁচল থেকে কটা পাকা কুল দিলো চাঁদুকে,  হাত ছাড়িয়ে। চাঁদু বললো, তোর সব সময় কাঁটা নিয়ে কাজ। কুলগাছেও কাঁটা থাকে। চুমকি হাসতে হাসতে বললো, তুই তো আমার মিষ্টি কুল। তাইতো কাঁটা ভালোবাসি।

Write comment (0 Comments)
0
1
0
s2sdefault

WhatsApp Image 2018 10 04 at 23.19.09

গাছ
সুদীপ ঘোষাল


সমস্ত সংসারে একটা গাছের মত ছায়া থাকে মায়ের
চাল,ডাল,হাঁড়ি কুঁড়ির সমস্ত মশলা মায়ের হাতের পরশে
অমৃত হয়ে ঝরে পড়ে খিদের পাতে
আমরা ফুটপাতবিলাসি ভিখিরির মত
চেটেপুটে খাই মায়ের পরিশ্রমের ঘাম

কালচক্রে যখন মায়ের পালা পাল্টে শিশুর ভূমিকা নেয়
আজন্ম ঋণী তখনও শোধ করার চেষ্টাটুকু পর্যন্ত করে না জমাকৃত ঋণ
শিশুসুলভ চক্রান্তে মাকে প্রতারণা ক'রে
বৃদ্ধাশ্রমে দিয়ে আসে দুধের ঋণ ভুলে

মায়ের আশীর্বাদ ভুলে যায় সমস্ত অভিমান...




Write comment (0 Comments)
0
1
0
s2sdefault