Mohool Potrika
Login Here  Login::Register

logo corona

করোনা একটি কদম ফুল ।। নিমাই জানা

 

অ-শরীর নিয়ে খেলা । স্থিতধী পুরুষের মতো টুকটুক করে হেঁটে ফিরছি প্রেসক্রিপশন হাতে । প্রমাণ স্বরূপ। শাঁখ হাতে দৌড়াচ্ছে বরফ মানুষের দল । হাতে জীবনদায়ী এমলোডিপিন ।নিউরোফিট । ব্রেনের শিরার ওষুধ । দৌড় সকলের চাঁদের দিকে । চাঁদকে নিয়ে অনিদ্রা বেড়েছে রোগীর । ঘুমকাতুরের কাছে জড়ভূত । আকাশের প্রতিটি নক্ষত্র , নীহারিকার আয়ু বেড়েছে হেনা ফুলের মতো । ছোঁয়া যায় না যেসব তাকে ছোঁয়ার রোমাঞ্চতা বরাবরের । শ্যামদা ওষুধ  দোকানের বাইরে বৃত্তের ভেতর ঢুকিয়ে ফেলছে অসুখ শরীর গুলোকে । মুখ ঢাকা ছায়ার ভিতর বিচার চলছে আবার । রাজুর দোকানে গ্যাস লাইটার এ অবিরত জ্বলে পানিপথের যুদ্ধ । চোখের ভাঁজে সেই ভয় ভয়  কদম ফুল । রেনু দৌড়ায় পার্থেনিয়াম এর আগে আগে । আলো জ্বলে নি । তাস হয়নি । ভিডিও কলিং ও । গামছা বেঁধে রাস্তা পার হয়  রায় কাকু । ধুমসুধা নিয়ে চিন্তা বরাবরের । বড় দাম বেড়েছে ধোঁয়ার ! লখিদার কাঠের দোকানে ভিড় জমেনি বসন্ত পাখিদের । ফাগুন আগুন ফেলে দিয়ে , চৈত্র ফেলে দিয়ে , বৈশাখ চরকি কাটছে লাটাইয়ের নীচে, চড়ক কাঠের মতো । মেঘেদের ছায়া পড়ছে পাতার উপর । গাছগুলো তাড়াতাড়ি স্নান সেরে নিয়ে ঘুমোচ্ছে এখন নিশ্চিন্তে । গাছগুলো গহ্বর বালিকা । পবিত্রতা মেখে নিয়েছে সাদা প্রিটোনিয়া ফুল । সারাটা পিচ রাস্তা জুড়ে ভয় শুয়ে আছে । সাপ ত্রিশূল এর মত । অন্তর্ভেদী অসম্ভব সংক্রমণ । শিরা থেকে উপশিরায়। রক্তজালক থেকে মজ্জায় । তুলসীদার  কাটা কাপড়ের দোকানে হাফ গেঞ্জি পরে দাঁড়িয়ে আছে বট গাছের পাতা  ।ইনহেলেশন , অস্বস্তি না ছোঁয়ার । নিরাপদ দূরত্ব মেপে যাচ্ছে সময়ের ভগ্নাংশ । নাভিলম্ব ছেড়ে কাঁটা কম্পাসের বিন্দু তৈরি হচ্ছে প্রতিটি মানুষের ভিতর । পাতা ঝরিয়ে না মাড়ানোর আনন্দে রং মেখে নিয়েছে নীল-সাদা কালচিতি পুল । এখান থেকে উচিতপুর কালীমন্দিরের মানতে অপেক্ষা করে অনেক দুরারোগ্য অসুখ ।এসব গোপনে গোপনে লিপস্টিক মাখানো রং নিয়ে খেলতে খেলতে সাদা পলিথিনের বুলডোজার , হিটাচি খুলছে প্রাণহীনের কবর ।ছুঁতে পারা যাচ্ছে না সরলরৈখিক সম্পর্কগুলো । সোহাগের রাতগুলো বাইরের বারান্দা থেকে ঘুরে যাচ্ছে রাতের রাস্তা ধরে । পেছনে হাত বাড়িয়ে দাঁড়িয়ে আছে ছোট মাটির পুতুল নিজের তৈরি । কড়ে আঙ্গুলে নখ কাটছে দাঁত দিয়ে । মৃত্যু কত ঋণের দান ! ঢালাই রাস্তা ধরে এলো , বাঁশি বাজিয়ে মনসা মন্দিরের কাছ দিয়ে , কালী মন্দিরে দক্ষিনে নিমগাছের নিচে ধ্যানস্থ হয় । পারদ ক্রমাগত থার্মোমিটারের ছোট ঘরের ভেতর ঢুকে যায় । পেন্সিল ডগায় নিজের সাদাকালো ছবি আঁকছে অভি । তাহলে কতটা নিরাপদ আমরা । বেল পাতা ,অঞ্জলি ফুলে পাহাড় জমছে ঈশ্বরের পাড়ায় । নতজানু পৃথিবী অনেক এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছে আজ ।

করোনা Diary



আমাদের কথা

আমাদের শরীরে লেপটে আছে আদিগন্ত কবিতা কলঙ্ক । অনেকটা প্রেমের মতো । কাঁপতে কাঁপতে একদিন সে প্রেরণা হয়ে যায়। রহস্যময় আমাদের অক্ষর ঐতিহ্য। নির্মাণেই তার মুক্তি। আত্মার স্বাদ...

কিছুই তো নয় ওহে, মাঝে মাঝে লালমাটি...মাঝে মাঝে নিয়নের আলো স্তম্ভিত করে রাখে আখরের আয়োজনগুলি । এদের যেকোনও নামে ডাকা যেতে পারে । আজ না হয় ডাকলে মহুল...মহুল...

ছাপা আর ওয়েবের মাঝে ক্লিক বসে আছে। আঙুলে ছোঁয়াও তুমি কবিতার ঘ্রাণ...

 

 

কবিতা, গল্প, কবিতা বিষয়ক গদ্য পাঠাতে পারেন ইউনিকোডে ওয়ার্ড বা টেক্সট ফর্মাটে মেল করুন admin@mohool.in ।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ- www.mohool.in এ প্রকাশিত লেখার বিষয়বস্তু ও মন্তব্যের ব্যাপারে সম্পাদক দায়ী নয় ।